লিবার পরিস্কার রাখার প্রয়োজনীয় খাবার

Written by: moonlight


About : This author may not interusted to share anything with others

1 year ago | Date : November 8, 2016 | Category : লিভার | Comment : Leave a reply |

liverআমাদের দ্বিতীয় বৃহত্তম অঙ্গ হচ্ছে লিভার। আমাদের শরীরে যা ঢুকছে অর্থৎ  আমর যা খাচ্ছি তা শরীরে ক্রিয়া প্রকৃয়ার পর তা দেহ থেকে বেড়িয়ে যেতে সাহায্য করে লিভার। ক্রিয় প্রক্রিয়ার পর অসার (পরিত্যাক্ত) অংশ যদি দেহ থেকে বাহির না করত। তাহলে আমরা অসুস্থ হয়ে যেতাম। লিভার আমাদেরকে সুস্থ রাখে তাই আমাদের তো প্রয়োজন তাকে সুস্থ রাখা।

অতএব, আসুন জেনে নেই কোন খাবার গুলো লিভারকে সুস্থ রাখে।

 

জাম্বুরাঃ- জাম্বুরাতে আছে উচ্চমাত্রায় ভিটামিন-সি এবং অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট যা লেভারের ক্লিঞ্জিং প্রসেসকে বৃদ্ধি করে। ছোট এক গ্লাস জাম্বুরার রস লিভারের ডিটক্সিফিকেশন এনজাইমের উৎপাদন বৃদ্ধি করে যা কার্সিনোজেন এবং অন্যান টক্সিনকে পরিপূর্ণ ভাবে বাহির হয়ে যেতে সহযোগিতা করে।

 

রসুনঃ- সবছেয়ে বেশি লিভার পরিস্কারক খাবার হচ্ছে রসুন। এতে আছে প্রচুর পরিমান এনজাইম যা লিভার থেকে টক্সিন বাহির করতে সহায়তা করে। এছাড়াও রসুনে সেলেনিয়াম ও এলিসিন নামে দুইটি উপাদান আছে। এরাও লিভার থেকে টক্সিন বাহির হতে সাহায্য করে।

 

বিট ও গাজরঃ- গাজরে আছে প্রোটিনে সমৃদ্ধ  গ্লুটাথায়ন যা লিভারকে বিষ মুক্ত করতে সহায়তা করে। গাজর এবং  বিট উভয়ের মধ্যে উচ্চমাত্রায় উদ্ভিজ ফ্লেভনয়েড ও বিটা ক্যারোটিন  থাকে।গাজর ওবিট খেলে লিভারের অনেক উপকার হয়।

 

সবুজ শাক – সবজিঃ- সবুজ শাক সবজিতে উচ্চমাত্রায় ক্লোরোফিন থাকে যা রক্ত প্রবাহ থেকে নির্গত বিষ শোসন করে। সবুজ শাক সবজি লিভার পরিস্কার করতে খুবই উপযোগী। এছাড়াও দেহের ক্ষয় পূরন, বৃদ্ধি সাধন এবং রোগ প্রতিরোধে শাক সবজির তুলনা হয় না।

 

গ্রিন টিঃ- গ্রিন টি অর্থাৎ সবুজ চা হচ্ছে লাভিং বেভারেজ বা লিভার প্রেমি পানীয়। এতে আছে ক্যাটেচিন সমৃদ্ধ অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট যা লিভারের কাজে সাহায্য করে। চিনি মুক্ত গ্রিন টি সর্বদায়ী স্বাস্থের জন্য উপকারী।

 

এছাড়াও লেবু, টমেটো, আপেল, অলিভ অয়েল, মিষ্টি আলু, বাঁধা কপি ইত্যাদি নিয়মিত খাবারের ফলে লিভারের রোগ কম হয়।

tags:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


↑ Top